গঠনতন্ত্র

ধারা ১: নাম
সংগঠনের নামঃ সমাজ সমীক্ষা সংঘ, ইংরেজীতে Society for Social Studies সংক্ষেপে SSS.
ধারা ২: প্রতিষ্ঠকাল
সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকাল ১৮ মার্চ, ২০০৬ ইংরেজী, ৪ চৈত্র, ১৪১২ বাংলা।
ধারা ৩:পতাকা
সংগঠনের পতাকার জমিন হবে সাদা। জমিনের দু’পাশে লাল রং এর ইংরেজী এস আকৃতি এবং মধ্যখানে লোগো।
ধারা ৪: চিহ্ন বা লোগো
সবুজ রঙে ঢাকা দু’হাতের মাঝে শান্তির তিনটি শিখা।

ধারা ৫: লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

১. সমাজ সমীক্ষা সংঘ দেশের শুভ বুদ্ধি সম্পন্ন জনগণকে বিশেষ তরুণ সমাজকে সংগঠিত করবে।

২. দেশের সমস্যাবলী উপলদ্ধি ও তার সমাদান অন্বেষণের জন্য সংগঠনের কর্মীদের উদ্বুদ্ধ করবে।

৩. এদেশের তরুণ সমাজকে অধ্যয়নে ও চিন্তার উদ্বুদ্ধ করার জন্য দেশের বিভিন্ন সমস্যাবলী সম্পর্কে নিয়মিত সেমিনার, পাঠচক্র, কর্মশালার আয়োজন করবে।

৪. দেশের সমস্যাবলী সম্পর্কে গবেষণা প্রকল্প গ্রহণ করবে এবং এই গবেষণা সমূহের ফল নিয়মিতভাবে দেশের জনগণ  ও নীতি নির্ধায়কদের কাছে তুলে ধরবে।

৫. দেশের সমস্যাবলী সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য সামাজিক আন্দোলনের সূচনা করবে এবং এই সংগঠনের উদ্দেশ্য ও আদর্শের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ন যে কোন আন্দোলনে সমর্থন যোগাবে।

৬. দেশীয় ও আন-র্জাতিক রাজনীতি, অর্থনীতি সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে নিয়মিত অধ্যয়ন, আলোচনা আয়োজন করবে।

৭. বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি এবং ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর ভাষা ও সংস্কৃতির বিকাশ ও প্রসারের জন্য প্রয়োজনীয় পরিকল্পনা ও উদ্যোগ নেবে।

ধারা ৬: সদস্য

ক) সংগঠনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য, গঠনতন্ত্র, কর্মসূচীতে আস্থা স্থানপকারী দেশের যে কোন নাগরিক সংগঠনের নির্বাহী পরিষদের অনুমোদন ক্রমে সদস্য হতে পারবেন।

খ) সদস্যের শ্রেণীবিভাগ-

নিম্নরূপ চার প্রকারের সদস্য থাকবেঃ

অ) সাধারণ সদস্য: দেশের যে কোন নাগরিক বাৎসরিক ১০০ টাকা চাঁদা প্রদান সাপেক্ষে সাধারণ সদস্য হতে পারবেন।

আ) সহযোগী সদস্য: প্রবাসী বাংলাদেশীরা বাৎসরিক নূন্যতম ১,০০০ টাকা চাঁদা প্রদান সাপেক্ষে সহযোগী সদস্য হতে পারবেন।

ই) সম্মানিত সদস্য: স্ব স্ব ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ কোন ব্যক্তিকে নির্বাহী পরিষদের অনুমোদন ক্রমে সম্মানিত সদস্য পদ প্রদান করা হবে।

ঈ) আজীবন সদস্য: এককালীন ১০,০০০ টাকা প্রদান সাপেক্ষে যে কোন  প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তি সংগঠনের আজীবন সদস্য হতে পারবেন।

গ) প্রতি জানুয়ারী মাসের মধ্যে সদস্য চাঁদা প্রদান সাপেক্ষে সদস্য পদ নবায়ন করতে হবে।

ঘ) নির্বাহী পরিষদ সদস্যদের চাঁদার হার পরিবর্তনের অধিকার সংরক্ষণ করে।

ধারা ৭: সদস্য পদ বাতিলের নিয়মাবলী

ক) কোন সদস্য স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করলে

খ) দেশবিরোধী ও সংগঠনের ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্র বিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত হলে।

গ) কোন সদস্যের এক নাগাড়ে তিন বছরের অধিক চাঁদা বাকী পড়লে।

ঘ) গুরুতর অপরাধের কারণে দোষী সাব্যস- হলে সংগঠনের সদস্য পদ বাতিল, দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি এমন কি বহিষ্কার করার এখতিয়ার নির্বাহী পরিষদ সংরক্ষণ করে।

ধারা ৮: সাংগঠনিক কাঠামো
সংগঠনের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ৩টি পরিষদ থাকবে। যথা

অ) সাধারণ সভা

আ) নির্বাহী পরিষদ

ই) উপদেষ্টা পরিষদ

অ) সাধারণ সভা সংগঠনের সকল ধরণের সদস্যদের নিয়ে সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সাধারণ সভা হবে সংগঠনের সর্বোচ্চ পরিষদ। এতে নির্বাহী পরিষদ কতৃক পেশকৃত সংগঠনের কাজের প্রতিবেদন, আর্থিক প্রতিবেদন, ভবিষ্যত পরিকল্পনা‌ ইত্যাদি বিষয়ে সাধারণ সভায় আলোচনার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

আ) নির্বাহী পরিষদঃ সংগঠনকে পরিচালনার জন্য ১৫ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাহী পরিষদ থাকবে। এ পরিষদে ১ জন সভাপতি, ১ জন নিবার্হী সভঅপতি, ১ জন নির্বাহী পরিচালক, ৮ জন বিভাগীয় পরিচালক ও ৪ জন পরিচালক থাকবেন। নির্বাহী পরিষদের মেয়াদকাল হবে ২ বছর। নির্বাহী পরিষদের মেয়াদ শেষে পরবর্তী সাধারণ সভায় সংগঠনের সকল সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে নতুন নিবার্হী পরিষদ গঠিত হবে। কোনরূপ জটিলতা দেখা দিলে গোপন ব্যালেট মাধ্যমে ভোগ গ্রহণ করা হবে।

ই) উপদেষ্টা পরিষদঃ নিবার্হী পরিষদ প্রয়োজনবোধে এক বা একাধিক বিষয়ের বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গঠনমূলক পরামর্শ গ্রহণের জন্য তিন থেকে সাত সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা পরিষদ গঠন করতে পারবেন। উপদেষ্টা পরিষদ নির্বাহী পরিষদের আমন্ত্রণক্রমে সংগঠনের সুনির্দিষ্ট বিষয়ে উপদেশ বা পরামর্শ প্রদান করবেন। নির্বাহী পরিষদ উপদেষ্টা পরিষদ বিলুপ্ত করতে পারবেন।

ধারা ৯: নিবার্হী পরিষদের দায়িত্ব ক্ষমতা ও কার্যাবলী

ক) নিবার্হী পরিষদ সাধারণ পরিষদের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করবে।

খ) ঘোষণা পত্র গঠনতন্ত্রের আলোকে নির্বাহী সংগঠনের যাবতীয় কাজ পরিচালনা করবে।

গ) জরুরী ও বিশেষ কাজের জন্য উপকমিটি গঠন করবে।

ঘ) কর্মকর্তা ও কর্মচারী নিয়োগ, বেতন ভাতা সম্মানী ও দায়িত্ব নির্ধারণ, নিয়োগ বাতিল করতে পারবে।

ঙ) সকল প্রশাসনিক ব্যবস্থা পরিচালনা করবে।

চ) সংগঠনের সকল হিসাব-নিকাশ, খরচের ভাউচার, ক্যাশ বই লেজার বই, চুড়ান- হিসাবের বিবরণী প্রস্তুত করবে।

ছ) প্রয়োজনে নিরীক্ষক নিয়োগের মাধ্যমে সকল হিসাব নিরীক্ষা করানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

জ) নির্বাহী পরিষদ প্রয়োজনবোধে জরুরী ভিত্তিতে গঠনতন্ত্রে উল্লেখ নেই এমন বিষয়ে পরবর্তীতে সাধারণ সভায় অনুমোদন সাপেক্ষে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবেন।

ঝ) নির্বাহী পরিষদ সংগঠনের ভবিষ্যত কর্মসূচী ও করণীয় নির্ধারণ করে সাধারণ সভায় পেশ করবেন।

ঞ) নির্বাহী পরিষদের যে কোন সদস্য পদত্যাগ করার অধিকার সংরক্ষণ করেন।

ট) নিবার্হী পরিষদের কোন সদস্য দায়িত্ব পালনে অসামর্থ্য অথবা ব্যর্থ হলে নির্বাহী পরিষদ তাকে অব্যাহিত দিতে পারবেন।

ঠ) মেয়াদ কালের মধ্যে নিবার্হী পরিষদের কোন পদ শূন্য হলে সংগঠনের সদস্যদের মধ্য থেকে কো-অপ্ট করা হবে। শূন্য পদ পূরণের পূর্ব পর্যন- নিবার্হী পরিষদের মনোনীত ব্যক্তি উক্ত দায়িত্ব পালন করবেন।

ধারা ১০: নির্বাহী পরিষদের বিভাগ সমূহ
সংগঠনের কাজের সুবিধার্থে পরিষদের ৮টি থাকবেঃ নির্বাহী পরিষদের ৮ জন সদস্য এসব বিভাগের পরিচালক নিযুক্ত হবেন। এগুলো হলো-

ক) প্রচার ও প্রকাশানা

খ) গবেষণা

গ) অর্থ

ঘ) পাঠচক্র ও সেমিনার

ঙ) ব্যবস্থপনা

চ) তথ্য ও জনসংযোগ

ছ) দপ্তর ও সংস্থাপন

জ) অধিকার সংরক্ষণ নিবার্হী

ধারা ১১: নিবার্হী পরিষদের সদস্যদের ক্ষমতা, দায়িত্ব ও কতব্য

ক) সভাপতিঃ

সভাপতি সংগঠনের সকল ধরনের সভা-অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন। তিনি সংগঠনের সামগ্রিক বিষয়ের দিকে লক্ষ্য রাখবেন। তিনি নির্বাহী পরিচালক নিবার্হী পরিষদের সভা আহবান করতে বলবেন। সভাপতির অনুপস্থিতিতে নির্বাহী সভাপতি বা নির্বাহী পরিষদের সিদ্ধান্তক্রমে পরিষদের অন্য কোন পরিচালক সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন।

খ) নির্বাহী সভাপতিঃ

সভাপতি অনুপস্থিতিতে নির্বাহী সভাপতি সংগঠনের নির্বাহী পরিষদের সভায় সভাপতিত্ব করবেন এবং সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন এছাড়া নির্বাহী পরিষদ কর্তৃক তার উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করবেন।

গ) নির্বাহী পরিচালক :

নির্বাহী পরিচালক সভাপতির সাথে পরামর্শ করে নিবার্হী পরিষদের সভা আহবান করবেন। তবে সভাপতির সাথে পরামর্শ করার সুযোগ না থাকলে নির্বাহী সভাপতি না একাধিক পরিচালকের সাথে পরামর্শ করে সভা আহ্বান করবেন। তিনি সংগঠনের নির্বাহী পরিষদের সকল সদস্যদের মধ্যে সমন্বয় সাধন করবেন। তিনি সংগঠনের সকল পর্যায়ের সদস্যদের সাথে প্রয়োজনে যোগাযোগ রক্ষা করবেন। নির্বাহী পরিচালকের অনুপ্‌পস্থিতিতে সংগঠনের নির্বাহী পরিষদের সিদ্ধান্তক্রমে পরিষদের জন্য কোন পরিচালক নিবার্হী পরিচালকের দায়িত্ব পালন করবেন।

ঘ) পরিচালক, প্রচার ও প্রকাশনা :

সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশনা সংক্রান্ত যাবতীয় কাজের দায়িত্ব পালন করবেন এই পরিচালক। তিনি সংগঠনের প্রচার ও প্রসারে সচেষ্ট হবেন।

ঙ) পরিচালক, গবেষণা

সংগঠনের গবেষণা সংক্রান্ত সকল কাজের দয়িত্ব থাকবেন এই পরিচালক। তিনি গবেষণার বিষয়, ব্যাপ্তি, স্থান, সময় ইত্যাদি গবেষণ সংক্রান্ত নানা বিষয় নির্ধারণ করে নির্বাহী পরিষদে পেশ করবেন। গবেষণা  চলাকালীন সময়ে তিন গবেষণায় সমস্ত কাজ তদারকি করবেন।

চ) পরিচালক, অর্থ :

সংগঠনের আয়-ব্যয়ের খাত ও হিসাব, বাজেট, নানা খাতে অর্থ বরাদ্দ প্রদান সহ অর্থ সংক্রান্ত নানা বিষয়ে দায়িত্ব পালন করবেন এই পরিচালক। তিনি হিসাব বই সহ অর্থ সংক্রান্ত  যাবতীয় খতা সংরক্ষণ করবেন এবং নিবার্হী পরিষদ ও সাধারণ সভায় অর্থ রিপোর্ট পেশ করবেন। তিনি সংগঠনের অর্থের ভবিষ্যত উৎস চিহ্নিত করে নির্বাহী পরিষদের সভায় পেশ করবেন।

ছ) পরিচালক, সেমিনার ও পাঠচক্র :

সংগঠনের সেমিনার, পাঠচক্র প্রশিক্ষণ ইত্যাদির যাবতীয় দায়িত্ব পালন করবেন এই সংগঠনের সেমিনার, পাঠচক্র, প্রশিক্ষণ ইত্যাদির বিষয় নির্ধারণ করে নির্বাহী পরিষদে পেশ করবেন। এছাড়া সেমিনার, পাঠচক্র, প্রশিক্ষণ ইত্যাদি অনুষ্ঠিত হবার জন্য যাবতীয় দায়িত্ব পালন করবেন।

জ) পরিচালক, ব্যবস্থাপনা

সংগঠনের সকল ধরনের অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত যাবতীয় দায়িত্ব পালন করবেন এই পরিচালক। অনুষ্ঠানের স্থান নির্ধারণ, সুন্দরভাবে অনুষ্ঠান সম্পন্ন করার জন্য যাবতীয়  বিষয় তদারকি করবেন।

ঋ) পরিচালক, তথ্য ও জনসংযোগ :

সংগঠনের কর্মকান্ডে সাথে সংশ্লিষ্ট সকল ধরণের তথ্য সংগ্রহ এবং সংগঠনের বিবরণ ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার প্রকাশের জন্য তৈরী ও প্রেরণের দায়িত্ব পালন করবেন এই পরিচালক। তিনি তথ্য সংগ্রহ এবং সংগঠনের কর্মকান্ডের বিবরণ ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশের জন্য তৈরি ও প্রেরণের দায়িত্ব পালন করবেন এই পরিচালক। তিনি সংগঠনের কাজের সুবিধার্থে জনগণের সাথে যোগাগের কাজটিও করবেন।

ঞ) পরিচালক, দপ্তর ও সংস্থাপন :

সংগঠনের দপ্তর ও সংস্থাপন সংক্রান্ত যাবতীয দায়িত্ব পালন করবেন এই পরিচালক। তিনি সংগঠনের সমস্ত তথ্য, রিপোর্ট, দপ্তর ও সংস্থাপন সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয় সংরক্ষণ করবেন।

ট) পরিচালক, অধিকার সংরক্ষণ ;

দেশের নাগরিক মৌলিক অধিকার সচেতন, অধিকার রক্ষার জন্য উদ্ধুদ্ধকরণ নানা কর্মসূচী ও কৌশল নির্ধারণ করবেন এই পরিচালক। সংগঠনের সকল প্রকার কর্মকান্ডের আইনি জটিলতায় সহযোগিতা ও নিষ্পত্তি এবং অধিকার সংরক্ষণে সচেতন থাকবেন তিনি।

ঠ) সংগঠনের পরিচালকগণ সংগঠনের যাবতীয় কাজের সাথে যুক্ত থাকবেন। নির্বাহী পরিষদের এক বা একাধিক সদস্যের অনুপস্থিতিতে পরিষদের সিদ্ধান্ত ।

TOP
Facebook